What is Electrode, Flux, Filler rod and Polarity

ইলেকট্রোডের (Electrode) গায়ে যে আবরণ ব্যবহার করা হয় তাদের উপাদান (Element)সমহু লিখ ?

১) গ্যাস গঠন উপাদান: সেলুলুজ (Cellulose) , ক্যালসিয়াম (Calcium) , কার্বনেট (Carbonate),  ষ্ট্রার্চ (Starch)ইত্যাদি । এই জাতীয় উপাদান ওয়েল্ডিং জোনের উপর একটি গ্যাসিয় আবরন সৃস্টি করে এবং চারিদিকে বাতাস হইতে ওয়েল্ডিং জোন কে রক্ষা করি। ২)  NaO2, CaO2, Mgo , Tio2  ইহারা আর্কের বৈশিষ্ঠ উন্নয়ন করে। ৩)  অক্সিডাইজিং উপাদান (Oxidizing material): যেমন, ফেরোম্যাংগানিজ ,ফেরোসিলিকন ,গ্রাফাইট (Graphite) , এ্যালুমিনিয়াম (Aluminum) , এবং কাঁঠের গুঁড়া (Wood Powder)। ইহারা গলিত ধাতুকে (Molten metal)পরিশোধন করে । ৪)  বাইন্ডিং উপাদান (Binding element): যেমন : তরলকৃত কাঁচ (Liquid Glass), ডেস্ট্রিন (Destin), সোডিয়াম সিলিকেট (Sodium silicate), এসবেস্টস (Asbestos)ইত্যাদি ।

প্রশ্নঃ ইলেকট্রোডের গায়ের আবরনের কাজ কি ? অথবা, ইলেকট্রোডের গায়ে কেন আবরন ব্যবহার করা হয় ?

উত্তরঃধাতুর গায়ের আবরনের কাজ নিম্নে দেওয়া হলো :

  1. ওয়েল্ডিং করার সময় আবরণ সৃষ্টি করে বাতাসের অক্সিজেন হতে জোড় স্থান কে রক্ষা করা । এটি জোড়াকে ধীরে ধীরে ঠান্ডা করে ।
  2. এটি বাতাসের নাইট্রোজেন হইতে জোড়া স্থান কে রক্ষা করে ।
  3. উত্তপ্ত ধাতব কনার বিচ্ছুরন কম করা ।
  4. ইলেকট্রোডের কোর ওয়্যার কোন সংকর উপাদান কম থাকলে তা সরবরাহ করা ।
  5. সৃষ্ট আর্ক কে স্থিতিীশিল করে এবং আর্ককে সংরক্ষণ করে ।
  6. সঠিক ভাবে তাপ সঞ্চালনে সহয়াতা করে । ওয়েল্ডিং জোড়া কে শক্ত এবং শক্তিশালি করা ।

 আর্ক ওয়েল্ডিং এ গলিত ধাতুকে দূষণ হইতে রক্ষা করার জন্য ব্যবহৃত পদ্ধতি সমুহু হলোঃ

সাধারণত : ৩ পদ্ধতিতে আর্ক ওয়েল্ডিং এ গলিত ধাতুকে দূষণ হইতে রক্ষা করা যায় । যথাঃ

  1. ইলেকট্রোডের গায়ে কোটিং ব্যবহার করে : কতক গুলি জৈব পদার্থ যেমন : সেলুলোজ ,ক্যালসিয়াম , কার্বনেট , স্টার্চ ইত্যাদি ইলেকট্রোডের গায়ে কোটিং হিসেবে ব্যবহার করা হয় । ইহারা ওয়েল্ডিং এর সময় ওয়েল্ডিং জোনের উপর গ্যাসিয় আবরণ সৃষ্টি করে ফলে গলিত ধাতু বাতাসের অক্সিজেন হইতে রক্ষা পায়। ইহা ছাড়াও কোটিং হিসেবে ব্যবহৃত অক্সিডাইজিং উপাদান ফেরোম্যাংগাজিন ,ফেরোসিলিকন গ্রাফাইট , এলুমিনিয়াম , কাঠের গুড়া ইত্যাদি গলিত ধাতু পরিশোধনে ব্যবহৃত হয় ।
  2. ফ্লাক্স ব্যবহার করে : ফ্লাক্স গলিত ধাতু হইতে অক্সাইডকে ধাতু মল হিসেবে অপসরনের কাজে ব্যবহার করা হয় । ইহা ছাড়াও নাইট্রোজেন এবং অন্যান্য অপদ্রব্য অপসারণ করে ফ্লাক্স গলিত ধাতু কে দূষণ হইতে রক্ষা করে । ফ্লাক্স হিসেবে রুটাইল , চুনাপাথর ইত্যাদি ব্যবহার করা হয় ।
  3. নিষ্ক্রিয় গ্যাস ব্যবহার করে : হিলিয়াম , অর্গান , নিয়ন , নাইট্রোজেন , জেনন ইত্যাদি নিষ্ক্রিয় গ্যাসের অবিরাম প্রবাহের ভিতর ওয়েল্ডিং করলে গলিত ধাতুকে দুষণ থেকে রক্ষা করা যায় ।

প্রশ্নঃ ফ্লাক্স কি ? ইহা কেন ব্যবহার করা হয় ?

ফ্লাক্স : ইহা এক ধরনের রাসায়নিক যৈাগ যাহা ওয়েল্ডিং এর সময় যোড়া স্থান হইতে অক্সাইডকে অপসারনের কাজে ব্যবহার করা হয়। ইহা অন্যান্য ক্ষতিকারক রাসায়নিক বিক্রিয়া হইতে ওয়েল্ডকে রক্ষা করে। যেমনঃ চুনাপাথর , মাইকা, ফ্লোরস্পার ইত্যাদি ফ্লাক্স হিসেবে ব্যবহৃত হয়। ফ্লাক্স ব্যবহারের কারন গুলা নিম্নে দেওয়া হলো :

  1. ইহা জোড়া স্থান হইতে অক্সাইডকে অপসারন করে ফলে অক্সিডেশন হয় না।
  2. অন্যান্য অপদ্রব্য অপসারন করে।
  3. শক্ত এবং নমনিয় ওয়েল্ড তৈরির জন্য
  4. ফ্লাক্স গলিত ফিলার মেটালকে সঠিক স্থানে পৈাছায়ে দেয়।
  5. এই গলিত ফিলার মেটালের সারফেস টেনশন কমাইয়া দিয়ে ইহার প্রবাহ নিশ্চিত করে।
  6.  এটা ওয়েল্ডিং প্রক্রিয়া কে সহজতর করে।

প্রশ্নঃ ফিলার রড কি ?

ফিলার রড দ্বারা ওয়েল্ডিং করার সময় জোড় স্থানে ফাকা জায়গায় ধাতু সরবরাহ করার জন্য যে ধাতব রড ব্যবহার করা হয় তাকে ফিলার রড বলা হয়। বেস মেটাল এবং ফিলার রড গলে গিয়ে মিশ্রিত হয়ে জোড়ার কাজ সম্পন্ন করে। বেস মেটাল এবং ফিলার রড একই ধাতব পদার্থের হয়ে থাকে।

 প্রশ্নঃ পোলারিটি কী? উহা কত প্রকার ও কি কি ।

পোলারিটিঃ ডিসি কারেন্টের ক্ষেত্রে ইলেকট্রোন প্রবাহের দিককে পোলারিটি বলে। পোলারিটি ২ প্রকারঃ

  1. স্ট্রেইট পোলারিটি।
  2. রিভার্স পোলারিটি।

স্ট্রেইট পোলারিটিঃ ডিসি সরবরাহ দ্বারা ওয়েল্ডিং করিবার সময় যখন ওয়ার্ক পিচকে জেনারেটরের পজিটিভ সাইট এবং ইলেকট্রোড কে নেগেটিভ সাইটডে সংযোগ করা হয় তখন তাকে স্ট্রেইট পোলারিটি বলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *