Production Planning and Control process

প্রশ্নঃ উৎপাদন বলতে কি বুঝ (what is production means)?

উৎপাদন হচ্ছে একটি প্রক্রিয়া যাহার সাহায্যে প্রকৃতি লব্দ কাঁচা মাল কে মেশিন টুলস(Machine tools)ও শ্রমের দ্বারা মানুষের চাহিদা অনুযায়ি উপযোদ সৃষ্টি করে সেবা প্রদান করা হয় । অর্থাৎ উৎপাদন হচ্ছে এমন একটি প্রক্রিয়া যার সাহাযে পণ্য প্রস্তুত করে মানুষের সেবা প্রদান করা হয় ।

যেমন উৎপাদনের ৪টি উপকরন রয়েছে তা হলো :

Production planning and control

প্রশ্নঃ  উৎপাদনের প্রকারভেদ (Types of prodction )দেখাও ।

উৎপাদন মূলত ২ ভাগে ভাগ করা যায় ।

ক) অবিরাম উৎপাদন (Endless production)

খ) সবিরাম উৎপাদন (Intermittent production)

অবিরাম উৎপাদন কে আবার দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে ।

১.  ম্যাস উৎপাদন    (Mass production)    ২ .  প্রসেস উৎপাদন (Process production)

সবিরাম উৎপাদনকে আবার ‍ৃ২ ভাগে ভাগ করা যায় ।

১.   জব উৎপাদন (Job production)   ২.  ব্যাচ উৎপাদন (Batch production)

 

প্রশ্নঃ  বিভিন্ন প্রকার প্রডাকশন সিস্টেমের (Different types of production systems)নাম লিখ ।

ব্যাচ উৎপাদন মাস উৎপাদন
১  .  বাজারের চাহিদা অনুযায়ি একই সঙ্গে অসংখ্য দ্রব্য উৎপাদন করা হয় । একটি নির্দিষ্ট পরিমান উৎপাদনের পর আবার অন্য একটি ঈস্থাক্টি উৎপাদন হয় ।

২  . ইহা সবিরাম উৎপাদন প্রক্রিয়া ।

৩  . এক ব্যচ উৎপাদন শেষ হলে অন্য প্রডাক্ট উৎপাদনের জন্য নতুন সরাঞ্জামের সাহায্য নিতে হয় ।

৪  . রসায়ন শিল্পে ঔষধ এরুপ পদ্ধতিতে উৎপাদন করা হয় ।

১  . একই জিনিষ অনবরত বিপুল পরিমানে উৎপাদন হয়।

২  . ইহা অবিরাম উৎপাদন প্রক্রিয়া ।

৩  . এ উৎপাদনে একই ধরনের যন্ত্রপাতি ও সরাঞ্জাম দীর্ঘ ‍দিন যাবৎ ব্যবহার করা হয়  ।

৪  . অটো মোবাইল ,বয়ন শিল্প প্রভৃতিতে এই পদ্ধতিতে উৎপাদন করা হয় ।

 

 

জব উৎপাদনঃ যে উৎপাদন পদ্ধতিকে ক্রেতার ‍নির্দেশরনর উপর ভিত্তি করিয়া দ্রব্য উৎপাদন করা হয় তাকে জব উৎপাদন বলে । ইহা সবিরাম উৎপাদন পদ্ধতি । এই পদ্ধতিতে ক্রেতা তার মালের পূর্ন বিবরন প্রদান করিলে  সেই অনুযায়ি পণ্য উৎপাদন করা হয়।

যেমন : বড় টার্বো জেনারেটর ,বয়লার , জাহাজ , রেলের কাঁচ, ঢালাই কারখানা উৎপাদন বস্তু এই পদ্ধতির অন্তর্ভূক্ত ।

 

প্রশ্নঃ সংস্থা বা অর্গানাইজেশন বলতে কি বুঝ (What is the organization?)? একটি ভাল সংস্থার গুণাবলি লিখ ।

 

সংস্থা : সংস্থা হলো এমন একটি সংগঠন যাহা কোন নির্দিষ্ট উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের জন্য কিছু সংখ্যক জনসমষ্ঠির সমন্বেয়ে গঠিত ।

ভাল সংস্থার গুনাবলিঃ

  1. একটি মাত্র উৎস হতে নিয়ন্ত্রিত হতে হবে ।
  2. অধীনস্থদের সমালোচনা ব্যক্তিগত ভাবে করতে হবে ।
  3. বিভিন্ন নির্বাহির মধ্যে সমঝোতা থাকতে হবে ।
  4. প্রতিটি বিভাগ ও কর্মির কার্জ ক্ষমতা ও দায়দায়িত্ব সমন্ধে সুস্পষ্ট বর্ননা থাকতে হবে ।
  5. ইহার নিয়ন্ত্রণ সহজ হবে ।
  6. ইহার নিয়ন্ত্রণ সহজ হবে ।
  7. প্রতি বিভাগের কার্যের সমন্বয় সাধনের জন্য শক্ত কাঠামো থাকতে হবে ।

 

প্রশ্নঃ শিল্প কারখানার স্থানিয়করন বলতে কি (What is the localization of the industrial factory) বুঝ ?

 

শিল্পে কারখানার স্থানিয়করনঃ শিল্প কারখানা স্থাপন করিবার পূর্বে উহার সঠিক অবস্থান কোথায় হইবে তাহা নির্ণয় করে উহা স্থাপন করা কে শিল্পের স্থানিয় করন বলে। কারখানার সাফাল্য বহুলাংশে উহার সুযোগ ও সুবিধা জনক অবস্থান বা স্থানিয়করনের উপর নির্ভর করে ।

যেমন; চিনির কল,চা প্রক্রিয়াজাত কারখানা উৎপাদিত ভুমির কাছে হয়ে থাকে ।

 

একটি কারখানা স্থান ঠিক করবার সময় যে সকল বিষয় বিবেচনা করিতে হইবে তাহার অন্তত ৫ টি বিবরন হলো :

 

  1. জমির মূল্য : কারখানা গৃহ , আবাসস্থল , প্রভিতি স্থাপনে প্রচুর জমির প্রয়োজন কাজেই স্থান নির্বাচন কালে জমির মূল্যে অবশ্যই বিবেচ্য ।
  2. মালামাল পরিবহন : মালামাল আনা নেওয়ার জন্য সুবিধাজনক স্থানে কারখানা স্থাপন করতে হবে ।
  3. শ্রমিক: ঐ স্থানের শ্রমিকের মান এবং পরিমান বিবেচনা করতে হয় ।
  4. শ্রমিকের বৈশিষ্ঠ : কারখানা স্থাপনের জমির সমতলতা ,উচ্চতা , মাটির অবস্থা , বিদ্যূৎ ও গ্যাস সুবিধা ইত্যাদি ‍বিবেচনা করতে হয় ।
  5. কাচাঁমালের নৈকট্য : কাঁচামালের প্রাথমিক উৎসের নিকট কারখানা স্থাপনে সুবিধা পাওয়া যায় ।

 

 Industrial planning

 

প্রশ্নঃ যে সকল শর্তাবলি একটি প্লান্টের অবস্থানকে প্রভাবিত করে তাহাদের বর্ণনা দাও।

উপরের প্রশ্নের উত্তরে জমির মূল্য , কাচাঁমালের নৈকট্য , স্থানের বৈশিষ্ঠ , শ্রমিক , পরিবহন সুবিধা , ইত্যাদি দিলেই হবে তবে আরও যেসব দেওয়া যেতে পারে সেগুলা নিচে আলোচনা করা হলো :

যে সকল শর্তএকটি প্লান্টের অবস্থান কে প্রভাবিত করে সেগুলা হলো:

  1. সরকারের শিল্পনীতি : প্লান্টের অবস্থা নির্ণয় অনেক সময় সরকারের শিল্প নীতির উপর নির্ভর করে ।
  2. প্রতিযোগি শিল্প প্রতিষ্ঠানের নৈকট্য : একই রকম কারখানা গুলি একই জায়গায় হওয়া উচিত । একই রকমের সুযোগ সুবিধা লাভের প্রেক্ষিতে সমজাতীয় কারখানা গুলি এক স্থানে কেন্দ্রিভুত হইয়া থাকে । যেমন, নারায়ণগঞ্জে পাটকল বেশি ।
  3. পরিপূরক শিল্প প্রতিষ্ঠানের নৈকট্য : এক কারখানার উৎপাদিত পণ্য অনেক সময় অন্য কারখানার কাচাঁমাল হিসেবে ব্যবহৃত হয় তাই পরিপূরক ‍ুশিল্পের নৈকট্য কারখানার স্থান নির্বাচন কে প্রভাবিত করে ।
  4. অনুকূল আবহাওয়া : অনুকূল আবহাওয়া স্থান নির্বাচনকে প্রভাবিত করে । যেমন, ময়দা তৈরির কারখানার জন্য শুষ্ক আবহাওয়া প্রয়োজন তাই ময়দার কারখানা শুষ্ক আবহাওয়া সম্পন্ন স্থানে তৈরি করা হয়
  5. বাজারের নৈকট্য : কম সময়ে এবং কম খরচে বাজারজাত করনের সুবিধার জন্য ‍শিল্প কারখানা বাজারের কাছাকাছি হয়ে থাকে । ইহা ছাড়া আরও যেসব কারনে শিল্প কারখানার স্থান নির্বাচন কে প্রভাবিত করে সেগুলো হলো : জল ও স্থল পথে যাতায়াতের সুবিধা আবাসিক সুবিধা, সমপ্রসারনের সুবিধা, পানি সরবরাহের সুবিধা, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সুবিধা ,মেরামত সুবিধা আর্ন্তজাতিক বাজার ইত্যাদি ।

 

প্রশ্নঃ প্লান্ট লে আউট বলতে কি বুঝায় (What does the plant layout mean?)? উহা কত প্রকার ও কি কি ?

প্ল্যান্ট লে- আউট : একটি কারখানা উৎপাদন কাজ কে সুন্দর সহজ ভাবে সু সম্পন্ন করার জন্য ,যন্ত্রপাতি, কাচাঁমাল এবং উৎপন্ন দ্রব্যের গুদাম ঘর ,জিনিসপত্র রাখার স্থান ,যাতায়াতের গলি পথ । উৎপাদনে সহয়াতা কারি অন্যান্য বিষয়ে যথাযথ অবস্থান নির্ধারন বা বিন্যাসকেই প্ল্যান্ট লে- আউট বা কারখানা বিন্যাস বা প্রকল্প বিন্যাস বলে।

প্রকল্প বিন্যাসকে ৫ ভাগে ভাগ করা যায় ।

  1. প্রসেস লে- আউট
  2. প্রডাক্ট লে- আউট
  3. প্রডাক্ট এবং প্রসেস লে- আউট
  4. ষ্টেশনারি লে আউট
  5. মিক্সড লে- আউট

Industrial Plan layout

প্রশ্নঃ প্ল্যান্ট লে-আউট এর উদ্দেশ্য কি (What is the purpose of the Plant Layout?)?

প্ল্যান্ট লে- আউটের উদ্দেশ্য গুলি হচ্ছে :

  1. উৎপাদনে ধারাবাহিকত ও স্বাভাবিক গতি নিশ্চিত করা ।
  2. শ্রমিকের নিরাপত্তা,সন্তুষ্টি ও দক্ষতা বৃদ্ধি করা ।
  3. কারখানার সকল স্থানের সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করা
  4. কারখানার অভ্যান্তরের আলো ,বাতাস ,পানি ,বিদ্যুৎ , বিশ্রাম , প্রভৃতির সুযোগ নিশ্চিত করা ।
  5. মালামাল চালনা দ্রুত করা ।
  6. ভবিষ্যত পরিবর্তন ও সমপ্রসারন নিশ্চিত  করা ।
  7. উপাদানের মান ও পরিমান বৃদ্ধি করা ,বিক্রয় মূল্য হ্রাস করা তথা প্রতিষ্ঠানের লভ্যাংশ নিশ্চিত করা ।

 

প্রশ্নঃ ইভেন্টারি বা মজুত মাল কি (What is the stock)? কেন ইহার প্রয়োজন হয় ।

মজুত মাল : মজুত হচ্ছে শিল্প প্রতিষ্ঠানের অলস সম্পদ যাহার মু্ল্য রয়েছে এবং যাহ ব্যবহার যোগ্য । অথ্যাৎ মজুত মাল বলিতে কোন শিল্প প্রতিষ্ঠানের উৎপাদন প্রক্রিয়ায় বিভিন্ন দ্রব্য সামুগ্রির পরিমান কে বোঝায় ।

 

মজুত মালের প্রয়োজনিয়তা : মাল মজুত করন যদি ও উৎপাদন ব্যবস্থাপনায় কামনা করেনা তবুও কিছু কিছু ক্ষেত্রে এর প্রয়োজন রয়েছে । নিম্নে সেগুলো নিয়ে আলোচনা করা হলো :

  1. বেকার সমস্যা দুর করার জন্য চাহিদা না থাকলেও উৎপাদন চালু রেখে মজুত মাল করা হয় ।
  2. কাচাঁমালের দুস্প্রাপপ্রতা জনিত অসুবিধা দুর করার জন্য প্রতিষ্ঠানের মজুত সৃষ্টি করা হয় ।
  3. বাজারের বর্ধিত চাহিদার সুফল লাভের জন্য পণ্য উৎপাদন বৃদ্ধি করে মজুত করা হয় ।
  4. অধিক মুনাফার জন্য মৌসুমি অনুযায়ী কাচাঁমাল ক্রয় করিয়া মজুত সৃষ্টি করা হয় ।
  5. বাজারের দ্রব্য মূল্য হঠাৎ বৃদ্ধি পাইতে পারে এই অনুমান করিয়া পূর্বেই মাল মজুত করা হয় ।

 

প্রশ্নঃ ইভেন্টারি কন্ট্রোল বা মজত মাল নিয়ন্ত্রণ কি (What is the control of stock freight)? ইহার উদ্দেশ্য কি ।

মজুত মাল নিয়ন্ত্রণ : উৎপাদনের জন্য কাচাঁমাল যাতে অতিরিক্ত না ক্রয় করা হয় এবং উৎপাদিত দ্রব্য যাতে বিক্রয় অপেক্ষায় দীর্ঘদিন গুদাম জাত না করিতে হয় তাহার জন্য প্রয়োজনিয় ব্যবস্থা গ্রহণ করাই মজুত মাল নিয়ন্ত্রণ ।

মজুত মাল নিয়ন্ত্রণের উদ্দেশ্য সমুহ :

  1. গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ি দ্রব্য সরবরাহ করিয়া তাহাদের সন্তুষ্টি বিধান করা ।
  2. সুচিন্তিত ও ফলদায়ক মাল ক্রয়ের মাধ্যমে প্রতি ইউনিটের উৎপাদন খরচ সর্বনিম্ন রাখার ব্যবস্থা করা ।
  3. অতিরিক্ত মজুত মাল সরবরাহ জনিত লোকসান পিরিহার করা ।
  4. সল্প মজুত মাল সরবরাহ জনিত লোকসান পিরিহার করা
  5. গুদামে সংরক্ষিত পণ্যের যথাযথ তালিকা প্রস্তুত ও হিসাব সংরক্ষন করা ।
  6. বস্তু নিষ্ঠ বিক্রয় বাজেট তৈরি করা ।

 

প্রশ্নঃ মেশিন শপের জন্য কি ধরনের লে আউট করা হয় (What type of Layout are made for the machine shop)।

মেশিন শপের জন্য ২ ধরনের লে- আউট করা হয় ।

  1. প্রসেস টাইপ লে- আউট ।
  2. প্রডাক্ট টাইপ লে- আউট ।

 

প্রশ্নঃ বিন ট্যাগ বা বিন কার্ড কি (What is bin card)?

বিন কার্ড : গুদমে মাল রাখিবার পাত্রে বা স্থানে মালের তালিক সহ একটি কার্ড লাগানো থাকে । ইহাই বিন কার্ড । বিন কার্ডে ষ্টোর কিপার তারিখ সহ মালের প্রপ্তির পরিমান ও উদ্বিত্তের পরিমান লিপিবদ্ধ করিয়া রাখে ।

 

প্রশ্নঃ প্রসেস চার্ট (Process Chart)কী ? প্রসেস চার্টের প্রতিক গুলা দেখাও । 

প্রসেস চার্ট : কোন অপারেশন চক্রের বিভিন্ন পর্যায় ও তথ্যাবলির লেখচিত্রের প্রতিবেদন কে প্রসেস চার্ট বলে । ইহা কোন কার্যের পদ্ধতি বর্ণনা করিবার সর্বোৎকৃষ্ঠ কৌশল ।