How to fix this page is trying to load scripts from unauthenticated | study-based

Fix in 4 way “this page is trying to load scripts from unauthenticated”

প্রিয় দর্শক,

আশা করি অনেক ভাল আছেন। আপনি যখন বিভিন্ন ওয়েবসাইট ভিজিট করেন, তখন এই সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন। অথবা আপনি “this page is trying to load scripts from unauthenticated sources”এই সমস্যায় পড়েছেন। আপনার ব্রাউজারের কনটেন্ট লিংক এর ডান দিকে এই সমস্যার চিহ্নটি দেখতে পাবেন।  তবে এতে ভয়ের কিছুই নেই। আজকের এই আর্টিকেল সম্পূর্ণ পড়ুন, তাহলে “script error fix” করতে পারবেন।

আমি গুগলে এই সমস্যাটি নিয়ে সমাধান খুঁজেছিলাম। অনেকেই “how to fix script errors” এই বিষয়ে সমাধান দিয়েছে। কিন্তু তারা এই বিষয়ে সঠিক সমাধান দিতে পারেনি। এটার কারণ হল, তারা  ” load scripts from unauthenticated sources” এই বিষয়টির উপর ধারণা করে সমাধান দিয়েছেন। আমার study based ওয়েবসাইটের একটি ওপেন করেছিলাম এবং হঠাৎ, লক্ষ্য করেছিলাম “no authentication” সমস্যাটি। অন্যদের দেওয়া সমাধান এর উপায় গুলো দিয়ে চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু কোনো সুভল পাইনি। আশা করি, সম্পূর্ণ আর্টিকেল পড়বেন।

What is a script error

আপনাকে প্রথমেই জানতে হবে what is a script error, এবং কেন হয়?  আপনারা হয়তো ভাবছেন, এটি chrome browser, firefox অথবা  browser এ ভাইরাস ধরেছে। কিন্তু বন্ধুরা আসলে এমনটা নয়। এটি ব্রাউজারের সমস্যা নয়, এটি হল আপনার ওয়েবসাইটের সমস্যা অথবা আপনি যে ওয়েবসাইটটি ভিজিট করতেছেন। সেই ওয়েবসাইটটির সমস্যার কারণে, এধরণের সমস্যার সৃষ্টি হয়ে থাকে। আপনার যদি নিজের ওয়েবসাইটে এই সমস্যার সৃষ্টি হয়, তাহলে আস্তে আস্তে আপনি দর্শক হারাতে থাকবেন। দর্শকরা ভাইরাস আক্রমণের ভয়ে আপনার ওয়েবসাইটে দর্শক কখনোই আসবে না। এর ফলে, আপনার ইনকাম একেবারেই বন্ধ হয়ে যাবে। তাই, এই  script errors সমস্যাটার  সমাধান করা অত্যন্ত জুরুরী।

load scripts from unauthenticated

এছাড়াও আপনাকে নিচের বিষয় সমূহ জানা দরকার। যেমন:  proxy server site কী? Proxy server কীভাবে ওয়েবসাইটকে নিয়ন্ত্রণ করে?

proxy ও Network Server

proxy হচ্ছে এক ধরনের Network Server এটি কোনো ব্যবহারকারীর IP Address কে গোপন করে। ঐ প্রক্সির I.P দিয়ে ইউজারকে ইন্টারনেটের সাথে Connected করিয়ে দেয়। এর ফলে user,  ইন্টারনেটে কোনো website browse করলে,  উক্ত সাইটে ইউজারের আইপির বদলে proxy সার্ভারের I.P থাকবে। উদাহরণ: মনে করুন আপনার  আইপি এড্রেস 44.444.444.22. আপনি যদি কোনো একটা প্রক্সি সার্ভার ব্যবহার করেন। এবং ওয়েব ব্রাউজ করেন,  যার আইপি এড্রেস হতে পারে  22.888.456.22. এইটি। কিন্তু আপনার  ভিজিটকৃত সাইটসমূহ আপনাকে  22.888.456.22  অর্থাৎ প্রক্সি সার্ভারের আইপি এড্রেস দিয়ে শনাক্ত করবে। এখানেই কিন্তু আপনার প্রধান  আইপি এড্রেসটি গোপন থাকছে।

What is proxy server

সমাধানের উপায় সমূহ:

প্রিয় দর্শক, “this page is trying to load scripts from unauthenticated sources” এই সমস্যা সমাধান 4 টি উপায়ে করা যায়। বিভিন্ন ব্লগার এবং ওয়েব বিশেজ্ঞগণ বিভিন্ন ধরণের সমাধান দিয়েছেন। কিন্তু, আমি “load scripts from unauthenticated sources” সমস্যাটির সমাধান একটু ভিন্নভাবে দিয়েছি। আমি আশা করি, এটি আপনার সমস্যা সমাধান করবে। আপনি আরো ভাল করে বুঝে নেবার জন্য এই পোস্টটি পুনরায় শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ুন। অথবা, আমার ভিডিওটি সম্পূর্ণ দেখুন। আমি আশাবাদী আমার চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করে দিবেন এবং আমাদের সাথেই থাকবেন।

১. এন্টি ভাইরাস ব্যবহার: আপনার পিসিকে ও ব্রাউজারকে সবসময় সুস্থ রাখতে আপনার একটি এন্টিভাইরাস সফটওয়্যার ব্যবহার করা খুবই প্রয়োজন। যাতে ইন্টারনেট ব্যবহার করার সময় MALWARE, VIRUS, HIDDEN FILE পিসিতে প্রবেশ করতে না পারে। এগুলো আমাদের কম্পিউটারকে আস্তে আস্তে স্লো করে দিবে এবং পিসিকে একে বারেই অকেজো করবে। বাজারে বিভিন্ন কোম্পানির এন্টি ভাইরাস পাওযা যায়। এসব এন্টিভাইরাস আপনাকে কিনে ব্যবহার করতে হবে। এসব এন্টিভাইরাসকে পেইড ভার্সনও বলা হয়। এন্টিভাইরাস সরবরাহকারী কোম্পানি গুলোর মধ্যে AVG, AVAST, AVIRA, Kaspersky, Panda ইত্যাদি অনেক জনপ্রিয়।

হয়তো, এখন আপনি ভাবছেন,

পেইড ভার্সন কেনার সামর্থ্য নেই, এটা বললে আমার ভুল হবে। এর কারণ হল: আমরা এখন ছাত্র। যাহোক, ফ্রিতে এন্টিভাইরাস ব্যবহার করতে পারবেন খুব সহজেই। কিছু কিছু কোম্পানি একমাসের জন্য ফ্রিতে এন্টিভাইরাস সফটওয়্যার ব্যবহার করার সুযোগ দিয়ে থাকে। কিন্তু তারপর আবার কিনতেই হতে পারে। আপনি সারা বছর ফ্রিতে এন্টিভাইরাস ব্যবহার করার জন্য avira ব্যবহার করতে পারেন। আমি আমার পিসিতে ফ্রিতে সারা বছর অ্যাভিরা ব্যবহার করে থাকি। আপনি, আপনার পিসিকে সারা বছর সুস্থ রাখতে avira ব্যবহার করতে পারেন। কিভাবে avira ফ্রিতে ব্যবহার করতে হয়, তা জানার জন্য আমার ইউটিউবের ভিডিও দেখে আসতে পারেন।

২. Plugin Update Problem: আপনার ওয়েবসাইটে লগইন করুন এবং প্লাগিন সমূহ লক্ষ্য করবেন অথবা আপনার ড্যাসবোর্ড লক্ষ্য করুন, তাহলে হলুদ বর্ণের নোটিফিকেশন আপনাকে জানিয়ে দিয়েছে কি কি আপডেড দেওয়া প্রয়োজন। যাহোক, আপনার প্লাগিন গুলোকে আপডেট দিয়ে দিন সম্পূর্ণ ফ্রিতে। আপডেট দেওয়ার পর আপনার সাইটের যে কনটেন্ট সমূহের সমস্যা ছিল, সেই লিংকটি রিলোড দিন। আশা করি সমস্যার সমাধান হয়েছে। যদি একা না করতে পারেন তাহলে, আমাদের ইউটিউবের ভিডিওটি সম্পূর্ণ দেখুন।

৩. Theme Problem: আপনি যখন আপনার ওযেবসাইটে wordpress install করেছেন, তখন হয়তো  script সমূহ গুলো ভালো করে সাজানো হয়নি। তাই script গুলো আবার পুনরায চেক, আবার সাজিয়ে নিন। তাছাড়া, আপনার ওয়েবসাইটে ssl website সমস্যা থাকতে পারে। তাই এই সমস্যাটি সমাধানের জন্য ssl certification ভাল করে cpanel গিয়ে install করতে পারেন। যদি একা না করতে পারেন, তাহলে ইউটিউবের সাহায্যে নিতে পারেন। এই সমস্যাটা নিয়ে ইউটিউবে সার্চ করুন। আশা করি অনেক সমাধান খুঁজে পাবেন।

৪. Malware bytes ব্যবহার করা:

উপরোক্ত বিষয় গুলো দ্বারা যদি সমাধান না করতে পারেন। তাহলে আপনার ব্রাউজারে ভাইরাসের আক্রমণ হয়েছে। । এটা সহজেই দূর করা যায়না। এটা দূর করার জন্য গুগলের সাহায্যে নিতে হবে। গুগলের সার্চ অপশনে লিখুন I have chrome virus. এরপর সার্চ করুন।

তারপর একটু নিচের দিকে গুগলের একটি হেল্প লিংক খুঁজে পাবেন। যদি না পারেন তাহলে আমার ভিডিওটি সম্পূর্ণ দেখুন।

আশা করি বন্ধুরা, আপনাদের সমস্যাটি সমাধান হবে। আর্টিকেলটি আপনাদের কেমন লেগেছে? অব্যশই একটি কমেন্ট করবেন। আপনার কাছে যদি এর চাইতেও ভাল সমাধান থাকে, তাহলে অবশ্যই জানাবেন। বন্ধুরা আপনাদের শুভকামনা করছি।

ধন্যবাদ,

Study-based

আমাদের অন্যান্য পোস্ট সমূহঃ

1. How to download Adobe Audition CC 2019 for lifetime

2. How to activate Windows 10 with KMSpico_setup file 2018

3. Download adobe premiere pro cc 2018 full crack

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *